শনিবার, ২২ Jun ২০২৪, ০৭:০৯ পূর্বাহ্ন

প্রেমিক বাঙাল-শংকর দেবনাথ

যে নদী আমার ঘরে সারারাত খেলা করেঘুমে- সে নদীর নাম তুমি কখনও শোননি। তোমার ধারণা – আমি আজীবনঅনদীমাতৃক পথে তোমাকেই খুঁজে ফিরি। আমার মায়ের শাড়ি নকসি আঁকা- হেমন্তবিকেলে যখন নিঃশব্দ প্রেমে ভিজে যায়শরীরের অসমভূমির সব বিস্তারিত ......

সবার জানা-সজলরঞ্জন হালদার

এই যে নোঙর ফেলে বসে আছিএকমুখী লোল চোখে খুঁজে চলেছিআদুল বনপথগামী অভিলাষ উদ্দেশ্যহীন সরল অবয়বের ভাষা যেন কুরুক্ষেত্র যুদ্ধের ধূসর আস্ফালন উপলব্ধিতে জপে চলেছিপুরনো স্বভাবের বেহায়াপনানীলসন্ধির বিপথগামীতাজলফড়িঙের নিজস্ব হুড়োহুড়িএবং ভেসে থাকার বিনিদ্র মাদকতা বাকি মহাকাশের বিস্তারিত ......

চিত্রহীন কবিতা-তপোন দাশ

কখনও হাত খোলে স্কার্টের ডাকনাম পর্যন্তএকটা মন দিয়ে অনেক শরীর পাতার শব্দগাড়ির নিচে শুয়ে স্কুলব্যাগ বলেনা সময়আগে জানলে ট্রেনে পড়তো বিয়ে কাটাঈদ পড়ছে রাস্তা ফেরা ঘর যে যারহাঁটা পকেটের দিকে হাততালি পাড় হচ্ছেনাভিতে ছায়া করে বিস্তারিত ......

মানবী-সুনীল মাজি

অন্নপূর্ণা বলে, এই সকালে দেখি, তোমার বেলিগাছে ফুল ফুটেছে।আমি তখনই এক আশ্চর্য গন্ধ পাই। পুরনো এক গাছের শরীরেআমার চোখ যায়। বসন্ত এলেই আমি তখন সাদা পাজামা পাঞ্জাবি।সারারাত নদীর বুক থেকে জল তুলি। মেঘে মেঘে সাঁতার বিস্তারিত ......

ভালো থেকো প্রিয়তম-সুমিতবৈদ্য

খুব ঢেউ উঠেছিল সেদিনধূসর মনি নদীর বুকে,সোহাগের বাঁধভাঙা আকুলতা নয়শ্রাবণের নীড় হারা পাখির যাতনাদেখেছিলাম আমি-সেদিন মালবিকার চোখে।ঝরাপাতার মতো খসখসে হাসিহলুদ খামে মুড়ে দিয়েছিলশেষ উপহার-‘ভালো থেকো প্রিয়তম’চাঁদের মতো একাকীঅন্ধকার চাঁদের বিস্তারিত ......

এই তো সময়-প্রবীর দাস

বসন্ত-বাতাসে যে নিজস্ব আবেগ তাকে গ্রহণ করপড়ে নাও অস্পষ্ট যা কিছু লেখা, যা কিছু সঞ্চিততোমার গোপন সিন্দুকে, আজ খুলে দ্যাখোসন্তপ্ত স্মৃতিতে হয়তো বা বদলেছে রংভ্রমণপিপাসু জীবন তোমার কত কিছু দিলেওকখন হারিয়েছে বনজ্যোৎস্নার আলো ও ছায়া,রহস্যময় বিস্তারিত ......

প্রতিযোগিতা-সুমন দিন্ডা

এইমাত্র খবর পাওয়া গেলসূর্য ওঠার বদলে রামধনু জেগেছে পূবকোনে,ছাপোষা বাতাসেরা তাই নিয়ে আনন্দেজড়িয়ে ধরছে খোলা বারান্দা আর বন্ধ উঠোন।এদিকে চাকরি দেবে বলে প্রতিশ্রুতিরা ঘুরছে,হ্যন্ডবিল হাতে নিয়ে যুবক পোস্টারদেওয়াল খুঁজছে নিজেকে মেলে ধরার জন্য।অনেক দিন আগে বিস্তারিত ......

সর্ব শক্তিমান-অশেষ দে

আমরা মানুষ আমাদের ক্ষমতা কতটুকুএ সত্যটা আমরা মানতে চাই নাআমরা আমাদের জ্ঞান নিয়ে গর্ব করিক্ষমতা অর্থের দম্ভ অহমিকা দেখাইমানুষকে মানুষ বলেই মনে করি না।মাঝে মাঝে বিজ্ঞান চিকিৎসা নিয়ে বড়াই করিআমরা নাস্তিক হয়ে ওঠার খেলায় মাতিএকবারের বিস্তারিত ......

চৈত্রে রচিত হিংসার কবিতা-সৌমিত বসু

মারা যায়নি বেড়ালটা।শুধু তার থাবা বেয়ে চুইয়ে আসা রক্তস্রোত।চোখের মনির ভেতর সে ধ’রে রেখেছে আততায়ীর ছবি।এই ছবি তার সম্পদ।এই ছবি সে দিয়ে যাবে তার প্রজন্মকে।চারিদিকে লাল নীল তারা।সেই তারার ভেতর সে খুঁজে বেড়ায় তার বাপ বিস্তারিত ......

চতুষ্পদী-নিলয় নন্দী

আমি কাঁটাতারের স্বপ্ন দেখতে দেখতে তলিয়ে যাচ্ছি গরুপাচারের গল্পে। চতুষ্পদীর ব্যারিকেডও নেই, আধারকার্ড ও নেই। শুধু এক ষাঁড় তাড়িয়ে বেড়াচ্ছে কেবল। ষাঁড়ের টিকি না টুপি চতুষ্পদী জানেনা। জানে শুধু ষাঁড়ের ধম্মো ওই, থাক, অন্তত মুখে বিস্তারিত ......



© All rights reserved © পাতা প্রকাশ
Developed by : IT incharge