মঙ্গলবার, ০৬ Jun ২০২৩, ০২:৪৬ পূর্বাহ্ন

বাংলা একাডেমির সভাপতি হলেন জাতীয় অধ্যাপক ড. রফিকুল ইসলাম

বাংলা একাডেমির সভাপতি হলেন জাতীয় অধ্যাপক ড. রফিকুল ইসলাম

পাতা প্রকাশ প্রতিবেদন >>
বাংলা একাডেমির সভাপতি পদে তিন বছরের জন্য নিয়োগ পেলেন ভাষাসংগ্রামী, শিক্ষাবিদ, গবেষক ও জাতীয় অধ্যাপক ড. রফিকুল ইসলাম। মঙ্গলবার জনপ্রশাসনের চুক্তি ও বৈদেশিক নিয়োগ শাখা এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে।
১৪ এপ্রিল ২০২১ বাংলা একাডেমির সভাপতি, ফোকলোর গবেষক অধ্যাপক ড. শামসুজ্জামান খান করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। তাঁর মৃত্যুর পর সভাপতি পদটি শূন্য হয়। সেই শূন্য পদেই নিয়োগ পেলেন অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম। এর আগে ২০২০ সালে জাতীয় অধ্যাপক আনিসুজ্জামান করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেলে সেখানেই নিয়োগ পেয়েছিলেন অধ্যাপক শামসুজ্জামান খান।
উপসচিব মো. অলিউর রহমান স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, বাংলা একাডেমি আইন, ২০১৩ এর ধারা-৬ (১) অনুযায়ী অধ্যাপক রফিকুল ইসলামকে এই নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।
বিশিষ্ট নজরুল গবেষক অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের প্রথম নজরুল অধ্যাপক এবং নজরুল গবেষণা কেন্দ্রের প্রথম পরিচালক। ৮৭ বছর বয়সী এই ভাষাবিজ্ঞানী, লেখক ভাষা আন্দোলনের সময়ের দুর্লভ আলোকচিত্র তুলেছিলেন। মুক্তিযুদ্ধের সময় তিনি সক্রিয়ভাবে মুক্তিযুদ্ধের অংশগ্রহণ করেন। পাকিস্তান সামরিক বাহিনীর বন্দীশিবিরে নির্যাতিত হন তিনি। প্রায় ৩০টি বই লেখা এবং সম্পাদনা করেছেন তিনি। ২০০৩ সালে ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮০ বছর’ বই লিখে লেখক হিসেবে ব্যাপক পরিচিতি পান।
ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টসের সাবেক এই উপাচার্য এক সময় বাংলা একাডেমির মহাপরিচালকের দায়িত্ব পালন করেছেন। ২০১৮ সালে সরকার তাঁকে জাতীয় অধ্যাপক হিসেবে নিয়োগ দেন।
অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম পেয়েছেন একুশে পদক পুরস্কার ,স্বাধীনতা পদক পুরস্কার ও বাংলা একাডেমি পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন। এছাড়া প্রথম আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা পদকেও ভূষিত হয়েছেন তিনি।
রফিকুল ইসলাম ১৯৩৪ সালের ১ জানুয়ারি চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার কলাকান্দা গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগে লেখাপড়া করেন। ভাষাতত্ত্বে উচ্চতর প্রশিক্ষণ নেন ও গবেষণা সম্পাদনা করেন আমেরিকার কর্নেল বিশ্ববিদ্যালয়, মিনেসোটা বিশ্ববিদ্যালয়, মিশিগান-অ্যান আরবর বিশ্ববিদ্যালয় এবং হাওয়াই বিশ্ববিদ্যালয়ের ইস্ট ওয়েস্ট সেন্টারে। ১৯৫৮ সাল থেকে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনা শুরু করেন। পরে সেখান থেকে অবসর নেন।

শেয়ার করুন ..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved © পাতা প্রকাশ
Developed by : IT incharge