মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:০৬ পূর্বাহ্ন

সোমের কৌমুদীর দুটি ছড়া

সোমের কৌমুদীর দুটি ছড়া

সোমের কৌমুদীর দুটি ছড়া

১. বর্ষার ফুল
বর্ষাকালে রিমঝিম ঝিম বাদল ধারার ফলে
মনটা খারাপ? বন্দী ঘরে, সকাল-বিকালে?
খেলার মাঠ, মেঠোপথ টানলে তোমাকে
বৃষ্টি শেষে হাঁটতে পার কাদামাখা পথে।
বিলের বুকে, দিঘীর জলে শাপলা ফুটে থরে থরে
দেখলে সে রূপ, খুশিতে তোমার মনটা যাবে ভরে।
শাপলার পাশে ফুটে আছে শত পানা ফুল
সে ফুলেরও রূপ দেখতে হয় না যেন ভুল।
কলমি লতায় ফুটে থাকা কলমি ফুলের শোভায়
মনের মাঝে খুশির ঝিলিক, মন অজানাতে হারায়।
বিলের কাছে, পথের পাশে ফুল কদম শাখে
বুঝবে তুমি প্রকৃতি আজ বর্ষাকে যায় ডেকে।
ঝোপেঝাড়ে, বাড়ির পাশে কেয়া ফুল ফোটে
ফুলের রূপে, ফুলের ঘ্্রাণে মনের তৃষ্ণা মেটে।
হাঁটা শেষে খুশি মনে ফিরবে যখন ঘরে
উঠোনে আসলে ফের দাঁড়াবে ক্ষণিক তরে।
পূব উঠোনের দক্ষিণ পাশে জুঁই গাছের সারি
আহˎ! সুবাসে মন ভরে যায়। রূপও মনোহারী।
সাঝের বেলা পড়ার সময় ফুলের সুবাস আসে
জানবে তুমি দোলনচাঁপা ডাকছে তোমায় কাছে।

২. বৃষ্টি পড়ে
বৃষ্টি পড়ে নদীর জলে
দীঘির বুকে
খালে-বিলে।
বৃষ্টি পড়ে পথে-ঘাটে
টিনের চালে
ক্ষেতে-মাঠে।
বৃষ্টি পড়ে সকাল-সাঁঝে
দুপুর-বিকাল
রাত-বিরাতে।
বৃষ্টি পড়ে কদম ফুলে
ঝুমকোলতায়
শাপলা ফুলে।
বৃষ্টি পড়ে দুলে দুলে
সুরের তালে
ছন্দ তুলে।

শেয়ার করুন ..

Comments are closed.




© All rights reserved © পাতা প্রকাশ
Developed by : IT incharge