সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০২৪, ১০:১৭ অপরাহ্ন

সৈয়দ খিজির হায়াত এর ১০ টি গান

সৈয়দ খিজির হায়াত এর ১০ টি গান

১. ব্যবসা পাতি বিত্ত বেসাত গুটিয়ে এবার রাখ
রমজানেরই মাসেরে তুই আল্লাহের নাম ডাক।
এক ডাকেতে সত্তর হাজার
হয় না খেলাপ ওয়াদা যে তার
আখেরাতে পাবেরে তুই রহমতেরই ভাগ ।
এই হিসাবে নাই কোন ভুল
ডাকলে খোদা করেন কবুল
ইবাদতে মশগুল হও ভাই দুনিয়া পরে থাক।

২. লোকে বলে মানুষের বুকে আছে
একটা হৃদয়
হয়তো বা আজ আর নেই
ধূয়ে মুছে নিয়ে গেছে হাজারো প্রলয়
যুদ্ধ মৃত্যু অবক্ষয় ।
মানুষের বেঁচে থাকা বড় দায়
অসহায় শিশুদের কাঁন্নায়
পৃথিবীটা কাঁপে আজ থর থর
মানবতা মরে গেছে নিশ্চয় ।
রক্ত পিপাসু যত ঘাতকের দল
গোলা বারুদ যাঁদের শক্তি বল
সুখ পায় করে তারা ধংস ক্ষয় ।

৩. আমার কষ্টে দুঃখ পেয়ে কাঁদছে কি আজ নীল আকাশ
তুষার ঝড়ে ঢেকে দিয়ে শহর বন্দর সবুজ ঘাস ।
আমি দেখতে আকাশ চাই বারে বার
দেখতে না মূখ তারি
ঢেকে আছে সুনীল বুক তার বরফ সাঁড়ি সাডি.
আমার কষ্টের সময় কাঁন্নাতে ভার
রয় যে দেখার আশ ।
দিন গেল হল না দেখা
রাতের আকাশ বরফ ঢাকা
আমি ঘরে বন্দী জিন্দা একটা লাশ ।

৪. তুমি পারলে না একটি বারও বলতে আমায় ভালবাসি ভালবাসি
আমি বেসেই ভাল বার বার শুধু বার বার শুধু তোমার কাছে গিয়েছি ।
ভিকারীও হাত বাড়ালে
দেয় কিছু তার শূন্য থালে
আমার বেলায় উল্টো হল না পেয়েই ঘর ফিরেছি ।
দেয়া নেয়ায় হয় জানি গো গাঁথা প্রেমের মালা
আমার শুধু হল না তাই বুকে দারুন জ্বালা
ভেবে ভেবে তোমার কথা পুড়া চোখে জল ফেলেছি ।
ভাবি যখন তোমার কথা
গুমরে কাঁদে হৃদের ব্যাথা
ভুলতে তোমায় পারি না যে তাই তো আমি হেরে গেছি ।

৫. কল কলে বয় তেরোশত নদী
পলি মাথা জল বুকে
হিন্দু মুসলমান বৌদ্ধ খৃষ্টান পাশা পাশি বাস সুখে ।
মাঠে মাঠে ধান ফসলের ঘ্রান মাছে ভরা হাওর বিল
দোয়েল কোকিল বন মোরগ আর ডানা মেলে গাঙচিল
মিলে মিশে আছি কাঁদি না কখনও দুখে ।
ও আমার দেশ ও আমার জন্মভূমি
তোমার কোলে জন্ম নিয়ে গর্বিত যে আমি
তুমি ছাড়া নাই নাই নাই ঠাই আর কারুএকতিল এ বুকে ।

৬. আমি হইতে মানুষ চেষ্টা করলাম
হইলাম কি আর হইলাম না
মনের কষ্ট জানে একজনা
আমার প্রানের কষ্ট জানে একজনা ।
সে জানে আর আমি জানি
দুই জনাতেই জানা জানি
ভবের মানুষ আর কেউ জানে না
মনের কষ্ট জানে একজনা
আমার প্রানের কষ্ট জানে একজনা ।
সে ছাড়া অন্য জনা
মারেফাতে কইতে মানা
খিজিরে কয় জানলে লোকে হয় না সাধনা
মনের কষ্ট জানে একজনা
আমার প্রানের কষ্ট জানে একজনা ।

৭. পাগল মন আর কিছু না চায়
বাউলা মন আর কিছু না চায়
থাকলে পাশে নিদান কালেতুমি মোর সহায় ।
তোমার তরে ভবের জীবন
শপতে দিও এই তনু মন
বিত্ত বেসাত না পাইলে কিবা আসে যায় ।
দুর করিয়া অন্তরের কালো
জ্বালাইয়া দাও তোমার আলো
অন্ধ দুচোখ পথ খুঁজে তার পায় ।
ভবের জীবন সাঙ্গ হলে
ঠাই দিও সাঁই চরন তলে
খিজিরে কয় আমি অসহায় ।

৮. ধার না ধারি কে কয় ভালা
নিজেরে চিন তুই একেলা
জীবন হবে তর উজালা
ভবের্ মাঝে
ও মন রাখিস হিসাব প্রতি কর্ম কাজে ।
তর হিসাব তরই হাতে
পাইবে যখন কিয়ামতে
নাম যেন রয় হৃদের ভাজে ভাজে ।
ভবের জীবন নয়রে খেলা
রঙ তামাশার উলা মেলা
খিজিরে কয় দাম কি ভবের রঙ বেরঙের সাজে ।!

৯. এ শহর জলের শহর
সুনামগজ্ঞের আরপিননগর নগর
চারদিকে জল জলের খেলা
মানুষ গুলো ভোলা ভালা
এ শহর জলের শহর
সুনামগজ্ঞের আরপিননগর
বুকেতে বান্ধিয়া আশা
আরপিননগরে বাসা
নিশাচর হইয়া আমি জলে বানছি ঘর
এ শহর জলের শহর
সুনাম গণের আরপিননগর ।

১০. আট কুঠুরীর দরজা খুলা
চোর ঢুকিবো রাইত একেলা
মালা মাল লইয়া খেলা
মালা মাল লইয়া খেলা
জেল পুলিশের ভয় থাকেনা ।
মন আমার যার পাগেলা
দেখি তার রুপ সাদা নীলা
ভেদা ভেদ আর বুঝি না ।
কেমনে চুরি করতে পারি
শিখাইয়াছিল বিলপাড়ী
খিজিরে কয় কলবে বাডী.
বান্ধা আইজও হইলো না ।

শেয়ার করুন ..

Comments are closed.




© All rights reserved © পাতা প্রকাশ
Developed by : IT incharge