বুধবার, ১৭ Jul ২০২৪, ১১:১৫ অপরাহ্ন

মাফরুহা মৌসুমীর ৪ টি কবিতা

মাফরুহা মৌসুমীর ৪ টি কবিতা

১. চাওয়া-পাওয়া

কেন অভিমান থাকবেনা তোমার!
যদি তোমার প্রিয়া হয় অভিমানী।
কেনইবা হাসবেনা তুমি!
যদি সে হাসিতে প্রিয়া হয় উচ্ছল।
কেন কাঁদবে তুমি?
যদি সে কান্না প্রিয়াকে কাঁদায়।
কেনইবা রবে না রাগ-অনুরাগ!
যদি তা দুজনার আরও কাছে আসায়।
কেন অস্থিরতা থাকবেনা বলো?
যদি প্রিয়া হয় অস্থির।
কেনইবা রবেনা দুয়ারখানি খোলা!
যদি পাঁজরের মুক্ত পাখিটি বন্দীর জন্য ওত পেতে থাকে।
তবে কেমনে থাকিবে হৃদয়দুয়ার বন্ধ?

২. স্বপ্ন ও আশা

মানুষ বাঁচে আশায়
স্বপ্ন তাকে ভাসায়,
হতাশা কে তাড়িয়ে
জীবন কে ভালোবাসায়।

দুরাশায় মানুষ কাঁদে
স্বপ্নকে ফেলে ফাঁদে,
চিন্তায় মাথা কাঁধে
জীবনকে না সাধে।

ভাব কাজের আগেই
উত্থান, পতন আছেই।
ধরোনা জীবন বাজি
হারতেই পার আজি।

রাখতে নিজেকে ভালো
সুক্ষ্ম চাল চালো।
নইলে দেখবেনা আলো
ভাববে সবই কালো।

জীবনটা তো তোমার
দায়টা কার ভাবার?
যদি হার আবার
শিক্ষা নেবে বারবার।

শ্রম,সততা,প্রার্থনায়
দেখবে যেকোনো অবস্থায়
পাবে সঠিক পথ
স্বপ্ন,আশাই রথ।

৩. বিশুদ্ধ ভালবাসা

বিলাসিতা চাইনা
বিশুদ্ধ ভালবাসা চাই।
রঙ্গরসে ভরা রঙ্গমঞ্চের প্রেম চাইনা,
কোমল পবিত্র একটা মন চাই।
সুখের পায়রা হতে চাইনা,
চাইনা আমার সোনার হরিণ,
একটা ছোট্ট শান্তির নীড় গড়তে চাই।
আকাশ ছোঁয়া স্বপ্ন আমার নাই,
তোমার কোলে মাথা রেখে মরতে চাই।

৪. মধ্যবিত্ত

সবায় কয় মুই মধ্যবিত্ত
মোর নাই চাম,
কেমন করিয়্যা এই কতা কয়
ভাবিয়্যা না পাং।
মোর নাকি নাই চিন্তা জ্বালা
চাকরি করি খাং,
বালশের তলোত চাকরি থুইয়্যা
নিনদ পাইরব্যার না পাং।
সরকারি চাকরি তো নোয়ায়
মুই সরকারের ছওয়া,
মাইনষের চাকরি করি খাং মুই
কত দেহায় ঠ্যাহা।
মাসশেষে খচ্চের তালক্যা দেকি
হাউদ্যা শুক্যায় মোর,
চাকরির মাস ক্যানে শ্যাষ হয়না
ভাবিয়্যা নাগে ফাঁপর।
বাসা,দোকান, স্কুল, প্রাইভেট
আরও কামের বেটি,
এক তারিকে বেতন নিব্যার
সবায় নাগায় খুটি।
সবার বেতন দিয়া থুইয়্যা
মনটা হয় বেজ্যার ,
এত কষ্ট করিয়া না পাং
করব্যার মাসের বাজার।
হাটত গেইলে মাতা ঘোরে
চোকে আন্দার দেয়,
আনাইজ,মাছ,গোশতের দরে
জোনাকি পোকা বেড়্যায়।
বাঁচি থাইকপ্যার নাগবে ভাবি
বাজার সদায় করং,
খাবার বসি গোশত,মাছ থুইয়্যা
নাবড়া উটকিব্যার ধরং।
বউয়ে কয়,কি হইবে তোমার
এত হিস্যাব করি?
দেহাটার কতা চিন্ত্যা না করলে
বিছন্যাত যাইবেন পরি।
মাসের শেষোত ট্যাকার ঠ্যাকায়
করেন ধার দেনা,
ঐষদ পত্রের যোগান দিব্যার
নাই কোনো ঠিক্যানা।
সাগাই সোদর সবায় ভাবে
ভালোয় চলে এমার!
চাওয়ার মত না পাইলে
গাইলও চলে বাম্পার!
দিন আনে দিনখায় যামরা
সবার কাছে চায়,
চাইরট্যাকা চায়া দুইট্যাকা দেয়
তাতে খুশি হয়।
মুইযে নামে মধ্যবিত্ত বাহে
চাওয়া কি শোভে?
শরমে মোর মাতাকাটা যাইবে
হাত পাতার ক্ষোপে।
সরকারি অনুদান যত বাহে
আইসে বছর বছর
মধ্যবিত্তের নাম না পাইবেন
উটকিয়া তার ভিতর।
অসহায় যামরা বাঁচে ওমরা
মেলা দান অনুদানে,
মধ্যবিত্ত টিকি থ্যাইকপ্যার নাগি
স্বপ্ন দেহং মনে।
কষ্ট করি বাড়ি করং
নাইলে দোকান খামার,
স্বপ্নপূরণ করব্যার জন্যে বেঁচাও
জমি,গাছ,পাগাড়।
তাও শ্যাষ হয়না কাম
এনজিওর ট্যাকা তোলং,
ঋণেরট্যাকা শোধ করব্যার না পায়া
স্টোক করি মরং
বৌ,ছওয়ার দুদ্দশা হয়
সামলিব্যার না পায়া,
হাতে করি পেটে খায়
সংসারত দুঃখের ছ্যায়া।
আল্লাহ যদি সহায় হয়
মাতা তুলি বাঁচে,
না হইলে ঠিক্যানা হয়
আসমানিদের ই মাঝে।

শেয়ার করুন ..

Comments are closed.




© All rights reserved © পাতা প্রকাশ
Developed by : IT incharge