সোমবার, ১৭ Jun ২০২৪, ০৪:২৮ অপরাহ্ন

প্রসঙ্গ : করোনা ভাইরাস-রেজাউল করিম মুকুল

প্রসঙ্গ : করোনা ভাইরাস-রেজাউল করিম মুকুল

প্রসঙ্গ : করোনা ভাইরাস
রেজাউল করিম মুকুল

বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সব শুনে বললেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নির্দেশনায় যা আছে সেভাবেই করোনার ঘোষণা দাও। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীর অনুষ্ঠান পরেও করা যাবে। দেশের মানুষের কাছে তথ্য গোপন করতে পারব না। করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে সর্বোচ্চ প্রচেষ্টা চালাও। আমি তোমাদের সাথে আছি।’
করোনাভাইরাস, বিজ্ঞান ও সুপার টেকনোলজি যুগের আজকের মানুষ নিজেকে কতটাই না অসহায় ভাবছে। মহাকাশ যার সীমা নেই, শেষ নেই , বাউন্ডারী নেই , কে বানালো এমন প্রশ্নের উত্তর যে যেমন ইচ্ছে ভাবতে পারেন, কিন্তু কেন বানালেন, কার জন্যে বানালেন এমন প্রশ্নের উত্তর কৌতুহলী যুক্তিবাদী মানুষ বারবারই জানতে চাইবে , কারণ জানার আগ্রহটা সবার জন্য একই রকম । সৃষ্টিকর্তার সৃষ্টিগুলোকে দুই ভাগে ভাগ করলে দেখা যাবে এতোটাই ক্ষুদ্র ও এতোটাই বড় । ক্ষুদ্র বলতে অদৃশ্য elementary particle , তারও ক্ষুদ্র , যন্ত্রেও অদৃশ্য electron , proton , neutron , photon , positron , anti-particle , quark এবং তারও ক্ষুদ্র কল্পিত তিন জোড়া বিপরিতমূখি উপাদানগুলোকেই বুঝতে হবে। আর বড় সে যে কত বড়, কার চেয়ে বড় এসব প্রশ্ন মানুষ চিরদিনই করবে। সম্প্রতিকালে চিন দেশে উৎপত্তি হওয়া এক অদৃশ্য করোনাভাইরাস নিয়ে সারা পৃথিবীর মানুষ আজ কতটাই না আতঙ্কে।
করোনা ভাইরাসের বয়স কত? সত্যিকার অর্থে বিজ্ঞিানীরা অনুমান করেন যিষুখ্রিষ্টের জন্মেরও ৮১০০ বছর আগে বাদুর ও পাখি জাতীয় উষ্ণরক্ত উড়ন্ত প্রাণিদের বিভিন্ন সময়ের আচরন পরিক্ষা করে খ্রিষ্টপূর্ব ২৪০০, ৩৩০০, ২৮০০, ৩০০০ অব্দে এদের নামকরণ করেন আলফাকরোনাভাইরাস এবং যথাক্রমে বিটা, গামা এবং ডেলটা। আতঙ্কের কারণ শ্বাসকষ্টজনিত কারণে মৃত্যুর মতো ঘটণা। একটা নয় করোনা একগুচ্ছ ভাইরাস। এই ভাইরাস সাধারন শীত বা ঠান্ডায় ম্যামাল এবং পাখিদের বেশী হয়। মানুষ আক্রান্ত হলে হৃদপিন্ডে সংক্রমন হবে, গরু শুকুর এমন গৃহপালিতের বেলায় ডাইরিয়া দেখা দেবে, এবং শেষপর্যন্ত শ্ব্সকষ্ট। মূল চিন্তার কারণ করোনার কোন টিকা বা অনুমোদিত ড্রাগস নেই। করোনাভাইরাস শব্দটি ল্যাটিন করোনা থেকে এসেছে যার অর্থ ক্রাউন বা রাজা বাদশার সম্রাটের মুকুট। এটা খুব যে নতুন কিছু তা নয়। যেমন ঠান্ডায় সর্দ্দিতে শিশু বা বড়দের নাক বন্ধ হয়ে শ্বাস নিতে কষ্ট হওয়ার মতো শীতকালিন সাধারন সমস্যা। কিন্তু করোনাভাইরাসের উপস্হিতি প্রথমটাতে মানুষ বুঝতে পারে ১৯৬০ সালে। তারপরে একে একে করোনা পরিবারের অনেকগুলো সদস্যের সন্ধান পান বিজ্ঞানীরা। এই যেমন ধরুন 229E, OC43। এর পরে SARS-CoV ২০০৩ সালে, HCoV NL63 ২০০৪ সালে, HKU1 ২০০৫ এ, MERS-CoV ভাইরাস ২০১২খ্রিঃ এবং nCoV ভাইরাস আবিষ্কার হয়েছে গতবছর ২০১৯খ্রিঃ। এদের সবার ঐ একই দোষ- মানুষ পশু যেই হোক নাক দিয়ে ফুসফুস আর হৃদপিন্ডের অলিন্দে ঢুকে পড়ে। শীতের প্রারম্ভে কিংবা ভরা শীতে এই করোনা ভাইরাস থেকে হোতে পারে সরাসরি ভাইরাল নিউমোনিয়া অথবা ব্যাকটেরিয়াল, অথবা ভাইরাল বা ব্যাকটেরিয়াল ব্রনকাইটিস রোগ। তারমানেই গলা ব্যাথা, গলা ফোলা এবং শ্বাসকষ্ট যার পরিনতি অকালমৃত্যু। চিনে জন্ম নেয়া করোনাভাইরাস এখন পর্যন্ত ইরান, ইটালি, আমেরিকাসহ ইউরোপের সব দেশ এবং আমাদের পার্শবর্তি দেশ ভারত ও আমাদের ঢাকাতেও এসে গেছে।
করোনাভাইরাস ভয়াবহ চেহারা নিয়েছে ইতালিতে। সিনেমাহল, থিয়েটার, অপেরা হাউস সহ বেশিরভাগ জনবহুল জায়গা বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। গোটা ইতালি কাঁপছে করোনার ত্রাসে। এক সরকারি ওয়েবসাইট জানাচ্ছে, করোনার জেরে ইতালির দেড়কোটি মানুষ আপাতত গৃহবন্দি। স্কুল, নাইট ক্লাব, ক্যাসিনো আর পাব বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছেন খোদ দেশের প্রধানমন্ত্রী জুসেপ্পি কঁতে।ঢাকায় অতি দ্রুত প্রয়োজনীয় সতর্কাবস্হা নেয়া হোয়েছে। বিশ্বস্বাস্হ সংস্হা বলেছেন চিনে ছড়িয়ে পড়েছে করোনা SARS, ২০০২ ও ২০০৩ খ্রিঃ মারা গেছে ৭৭৪ জন আর এ বছর এ যাবত এর কয়েকগুণ বেশী। ভয়ের ব্যাপার করোনা দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। বাংলাদেশসহ পৃথিবীর সব দেশই রেড এলার্ট জারি করেছে। চিনের নাগরিকরা বিদেশভ্রমণ করছেন না। খুব প্রয়োজন ছাড়া মানুষ দেশের বাইরে ভ্রমণও করতে চাচ্ছেন না। অন্যদিকে কিছু মানুষ এসব নিয়ে কারণে অকারণে গুজব গোসিপও ছড়াচ্ছেন। বিষয়টি শুনতে এবং বলতে দুইই যেন মজা। আমাদের শতাব্দীর ভয়াবহ কলেরা, ডাইরিয়া, ওলাওঠা, বসন্ত, ম্যালারিয়া একদিন মহামারীর আকার ধারণ করে গ্রামকে গ্রাম উজার করেছিলো, মানুষ এক গ্রাম ছেড়ে অন্য গ্রামে পালিয়ে যেতো প্রান বাচাতে। আজও ঠিক তেমনি করোনারভাইরাসের ভয়ে আজকের বিজ্ঞান ও সুপার টেকনোলজির যুগের মানুষ নিজেকে আজ কতটাই না অসহায় ভাবছে।

শেয়ার করুন ..

Comments are closed.




© All rights reserved © পাতা প্রকাশ
Developed by : IT incharge