শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ০৪:২৭ পূর্বাহ্ন

নুসরাত বিনতে ওয়াহিদ এর কবিতা অন্ধ চক্ষু

নুসরাত বিনতে ওয়াহিদ এর কবিতা অন্ধ চক্ষু

নুসরাত বিনতে ওয়াহিদ এর কবিতা অন্ধ চক্ষু
ভুবন ছেড়েছি আমি তোমার আশে,
শুনেছি তুমি নাকি থাকো মনের মন্দিরে।
কতো অপূর্ণ আশা পূরণের আশে,
হাত খানি তুলি তোমারি দরবারে।
কেহ ডাকে আল্লাহ, কেহ ডাকে ভগবান,
কেহ বা যিশু কিংবা বোদ্ধ তোমারি নাম।
মসজিদ, মন্দির, গীর্জা,প্যাগোডায়
দেখেছি তোমার হাজারো রূপ,
তারপরও রয়ে গেল অপূর্ণ এক ভুক।
কেহ বলে তোমারে পাওয়া যায়
সংসার ছাড়িয়া শাক্যুমনি হইয়া।
কেহ বলে দাড়ি মোচ কামাইয়া
ক্রসের সামনে ধন্যা ধরিয়া।
কেহ বা বলে দাড়ি ছাটিয়া মোচ রাখিয়া
কাঠপুতুলের সামনে লুটাইয়া পড়িয়া।
আবার কেহ বলে দিনে পাঁচবার
সময় করিয়া মাথা ঠেকাতে হয়
তোমার সামনে যাইয়া।
আমি সবখানে গেলাম তোমারি খোঁজে
তুমি নাহি মিলিলে আমার ধ্যান জ্ঞানে।
সবশেষে আমি খুলিলাম মনের দুয়ার
বসিলাম তার চৌকাঠে।
ধ্যান জ্ঞানে যাহা নাহি পাইলাম
তাহা মিলিল আমার মনের মন্দিরে।
চর্ম চক্ষু দিয়া আমি খুজিয়া পাইয়াইয়াছি তোমারে,
সকল মানুষের মধ্য খানে।
তুমি নাহি থাকো অট্টালিকার উপাশনালয়ে,
তুমিতো থাকো মানুষের হৃদয়ে।
কর্ম দোষে নাহি মেলে সে চক্ষু জোড়া
তোমারে দর্শিবে বলে।
আপনাদের সিন্ধান্তের অপেক্ষায় রইলাম।
ভালোবাসা নিবেন।

শেয়ার করুন ..

Comments are closed.




© All rights reserved © পাতা প্রকাশ
Developed by : IT incharge