মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:২৩ পূর্বাহ্ন

জাকির আহমদ’র ই-বুক ‘ জীবন সংক্রান্ত’ ছুঁয়ে যাক পাঠক হৃদয়-রানা মাসুদ

জাকির আহমদ’র ই-বুক ‘ জীবন সংক্রান্ত’ ছুঁয়ে যাক পাঠক হৃদয়-রানা মাসুদ

জাকির আহমদ’র ই-বুক ‘ জীবন সংক্রান্ত’
ছুঁয়ে যাক পাঠক হৃদয়
রানা মাসুদ

নন্দনতত্ত্ব ও শিল্প নিয়ে গ্রন্থটি আলোচনার আগে যৌক্তিক কারণে একটু আলোকপাত। শিল্পের প্রধান পরিচয়-শিল্প একটি সৃষ্টি। নিয়মশৃঙ্খলার আওতায় আবদ্ধ করলে শিল্পের চরিত্র ক্ষুণ্ণ হবার আশঙ্কা থাকে। নন্দনতত্ত্বের সূত্রসমূহ শিল্পসৃষ্টির ক্ষেত্রে কোনো ভূমিকা রাখে না বলে বাংলাদেশের কবিতার নন্দনতত্ত্ব বিষয়ক এক রচনায় গবেষক মাসুদুল হক সুস্পষ্ট করেই বলেছেন। বরং এসব সূত্রের সাহায্যে শিল্পকে ও তার অন্তর্গত সৌন্দর্যচেতনাকে গভীরভাবে অনুভব করা যায়,বিশ্লেষণ করা যায়।
নন্দনতত্ত্ব একটি প্রাচীন শাস্ত্র। পণ্ডিতগণ এর উৎপত্তি শিল্পসৃষ্টির প্রথম তৎপরতার সমসাময়িক কাল থেকেই ধরে আসছেন। শিল্প মানবমনের আনন্দিত উপলব্ধির বহিঃপ্রকাশ এবং সেই শিল্পকে যে শাস্ত্রে সৌন্দর্যের নানা দৃষ্টিকোণ থেকে পরীক্ষা বা ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ করা হয় তাই নন্দনতত্ত্ব।
শুরুতেই যেসব কথার অবতারণা করলাম তা যৌক্তিক। কেননা আজ যে কাব্যগ্রন্থ নিয়ে আলোচনার অভিপ্রায় তা একটি ব্যতিক্রমধর্মী প্রয়াস। আমি নিজেও এই ব্যতিক্রম প্রয়াসের মধ্য দিয়ে পথ চলছি। আমার ‘জীবনের চার লাইন’ সিরিজের কবিতাগুলো যেরকম একটা বড় ক্যানভাসকে ছোট করে প্রকাশের চেষ্টা থাকে ঠিক সে কারণে আমি কবি ও সংগঠক জাকির আহমদ-এর কষ্ট ও সাধনা সম্পর্কে খুব কাছে থেকে বোঝার চেষ্টা করছি এবং অনুভব করার চেষ্টা করছি কবির সাধনা কিংবা পরিস্ফূটন।
জাকির আহমদ একজন ছড়াকার হলেও কাব্য সাধনা তার যথারীতি আছে। গতানুগতিক ধারার বাইরে চিন্তা চেতনা কাজ করে তার। ফলে তার কলম থেকে ব্যতিক্রম কিংবা ভিন্নতা উদ্ভাসিত হয়।এরকম কিছু ভিন্ন আমেজের কবিতা কিংবা কাব্যকণিকা নিয়ে সাজিয়েছেন তার ‘জীবন সংক্রান্ত’ ই-বুক। এখানেও একটা ভিন্নতা কাজ করেছে। করোনাকালে যখন প্রকাশনা শিল্প স্থবির হয়ে আছে তখন পাঠককে শিল্প রস আস্বাদনের মানসে কবির প্রকাশনী সংস্থার এই ই-বুকের ভিন্নতর আয়োজন। এবং তা মন্দ যে নয় ইতিমধ্যে তা প্রমাণ রাখতে সক্ষম হয়েছে। আলোচ্য গ্রন্থে স্থান পেয়েছে ৭২ টি কবিতা।
কবি ও গবেষক নীরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তীর মতে, জাতে যদিও একটু আলাদা, তবুও কবিতাও আসলে সাংসারিক বিষয় ছাড়া আর কিছুই নয়, আমাদের এই সাংসারিক জীবনের মধ্যেই তার বিস্তর উপাদান ছড়িয়ে আছে। অনেকেই মনে করেন যে,কবিতা একটি অপার্থিব দিব্য বস্তু, এবং তাকে আয়ত্ব করবার জন্যে মুনি-ঋষির মতো, নির্জন পাহাড়ে-পর্ব্বতে কিংবা বনে জঙ্গলে গিয়ে তপস্যা করতে হয়। তবে তিনি এটা মনে করেন না।
জাকির আহমদ তার ‘জীবন সংক্রান্ত ‘ কাব্যগ্রন্থে মোট ৭২ টি লেখা দিয়ে সাজিয়েছেন। সমকালীন বোধ,যুগ যন্ত্রণা, সংসার তথা জীবন বোধ, আত্মজ টানাপোড়েন এবং সংঘাত,হৃদয়িক ব্যাঞ্জন, প্রকৃতি প্রভৃতি উঠে এসেছে এসব কবিতায়। ‘ঘাতক’ কবিতায় সমকালীন বিষয় তুলে এনে যাত্রা শুরু করেছেন তার ই-বুকের অভ্যন্তরে। কিন্তু ‘হেমন্তে’র বিকেলে এসে হেমন্তের দুই লাইনে সংযোজন একটু বিঘ্নতা তৈরি করে ‘পাসওয়ার্ডে’ এসে আবার আনন্দ সঞ্চার করে। একটা গভীর জীবন বোধ ছুঁয়ে যায় ‘জীবন’ কবিতা পাঠে। তাকানো মানেই দেখা না। তবে কি তা জানতে হলে ‘দেখা’ কবিতার গভীরে গিয়ে সে দর্শন খুঁজতে হয়। এসব ভালোর মধ্যে দুর্বলতা ধরা দেয় ‘ স্মৃতিরা ফিরে আসে’ পাঠ করতে গিয়ে।’সময়’ সিরিজে বেশ মুন্সিয়ানার ছাপ রেখেছেন কবি বোধের বিন্যাসে।বাঙময়তা খুঁজে পাওয়া যায় গ্রন্থের ‘ সমান্তরাল জীবনের খোঁজে ‘ পাঠে। অনুরূপভাবে অধিকাংশ কবিতা পাঠে ছুঁয়ে যায় ভালোলাগায়। ‘ফেরা হয় না গন্তব্যে’ এক অবাক মনস্তাত্ত্বিক টানাপোড়েনের চিত্র খুঁজে পাওয়া যায় যেমন তেমনি ‘বিবর্তন ‘ সঞ্চার করে গভীর বোধের। একটু কষ্ট ছুঁয়ে যায় যেমন ‘ এখন আর কবিতা লিখি না’ পাঠে আবার ‘দ্বৈত চরিত্র ‘ উদ্ভাসিত হয় ভাবের উপলব্ধি নিয়ে। একটা খুব চমৎকার কবিতা ‘ নবান্ন’ তেমনি একটু দুর্বল বোধ হয় ‘অপেক্ষা’য়। এরকম অনেক অনেক ভালো কবিতা ছুঁয়ে যায় জাকির আহমদ-এর ই-বুক ‘জীবন সংক্রান্ত ‘ পাঠে।
এ ধরণের আয়োজন অর্থাৎ প্রকাশনা খুব একটা প্রচলন চোখে পড়ে না। এর প্রচলনও খুব বেশিদিনের নয়। আমার নিজেরও এ ব্যাপারে তেমন কোন অভিজ্ঞতা নেই। তবে আমার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে এটাও দেখেছি যে,ই-বুক পড়তে মন্দ লাগে না। সবচেয়ে সুবিধে হয় এটা মোবাইলে থাকায় সময় ও সুযোগ মতো চটকরে পড়া যায়।জাকির আহমদ দুইটি বিষয়ের প্রতি একটা ভিন্ন দৃষ্টি তৈরি করেছেন। প্রথমত তিনি কবিতা নিয়ে ব্যতিক্রম ভাবনার এবং গ্রন্থের ব্যাপারেও ভিন্নতর চিন্তা-চেতনার প্রকাশ ঘটিয়েছেন। এই প্রকাশ তার একরকম স্বতন্ত্রবোধের পরিচয় দিয়েছে। আমি তার এই চিন্তার, এই পদক্ষেপের এবং এই পথচলার শুভ কামনা করছি। আমি ভীষণ আশাবাদি জাকিরের এই কাব্যগ্রন্থ ছুঁয়ে যাবে বহু পাঠক হৃদয়।
চমৎকার প্রচ্ছদ ও অলঙ্করণ করেছেন চারু লস্কর। পড়তে গিয়ে পাতায় পাতায় কবির মতোই শিল্পী চারু লস্করের হৃদয়িক প্রকাশ অনুভব করা যায়। এ বছরের ১৮ আগস্ট প্রকাশক শাকিলা পারভীন কর্তৃক পাতা প্রকাশ থেকে এই ই-বুকটি প্রকাশিত হয়েছে। এটির সম্পাদনা করেছে বাংলাবাড়ি। বাংলাবাড়িকেও অভিনন্দন ও ধন্যবাদ। সম্পাদনা এবং সংশোধনের কাজটাও একটা শিল্প। এর প্রাতিষ্ঠানিক তথা পেশাগত রূপ সময়ের প্রয়োজন। ই-বুক কনসেপ্টটা তরুণ প্রজন্মের অনেক লেখকের জন্য একটা স্বল্প খরচে প্রকাশনার সুযোগ তৈরি করবে বলে আশা রাখি।
আমি কবি জাকির আহমদ’র ই-বুক জীবন সংক্রান্ত-এর বহুল প্রচার ও প্রসার কামনা করছি। এর মূল্য ধরা হয়েছে।ধন্যবাদ।

শেয়ার করুন ..

Comments are closed.




© All rights reserved © পাতা প্রকাশ
Developed by : IT incharge